Tuesday, July 23, 2024

৭৭তম কান মাতাবে ‘ফিউরিওসা’


‘ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড’ মুক্তির ৯ বছর পর ভূমধ্যসাগরের তীরে ফিরছে অস্ট্রেলিয়ান পরিচালক, চিত্রনাট্যকার ও প্রযোজক জর্জ মিলারের এই ফ্র্যাঞ্চাইজ। এর বহুল প্রতীক্ষিত নতুন পর্ব ‘ফিউরিওসা: অ্যা ম্যাড ম্যাক্স সাগা’ স্থান পেয়েছে কান চলচ্চিত্র উৎসবের অফিসিয়াল সিলেকশনে।

জর্জ মিলার এবং ছবিটির তিন অভিনয়শিল্পী আনিয়া টেলর-জয়, ক্রিস হেমসওয়ার্থ ও টম বার্কের উপস্থিতিতে প্রতিযোগিতা বিভাগের বাইরে ‘ফিউরিওসা: অ্যা ম্যাড ম্যাক্স সাগা’র জমকালো উদ্বোধনী প্রদর্শনী হবে। পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে আগামী ১৫ মে ছবিটি দেখা যাবে।

‘ম্যাড ম্যাক্স’ (১৯৭৯), ‘ম্যাড ম্যাক্স টু: দ্য চ্যালেঞ্জ’ (১৯৮১), ‘ম্যাড ম্যাক্স: বিয়ন্ড থান্ডারডোম’ (১৯৮৫), ‘ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড’ (২০১৫) এবং ‘ফিউরিওসা: অ্যা ম্যাড ম্যাক্স সাগা’ (২০২৪)– প্রায় পাঁচ দশকে ফ্র্যাঞ্চাইজটির পাঁচটি পর্বের মাধ্যমে বড় পর্দায় ক্যাথরটিক পুরাণ তৈরি করেছেন জর্জ মিলার। ‘ম্যাড ম্যাক্স’ মূলত সামাজিক ও পরিবেশগত বিপর্যয়ের উপাখ্যান, যা বর্তমান সময়ের সঙ্গেও প্রাসঙ্গিক।

‘ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড’ সেরা পোশাক পরিকল্পনা, সেরা চলচ্চিত্র সম্পাদনা, সেরা রূপসজ্জা ও চুলসজ্জা, সেরা শিল্প নির্দেশনা এবং সেরা শব্দমিশ্রণ বিভাগে অস্কার জিতেছে। ছবিটিতে ফিউরিওসাকে দেখা গেছে। দক্ষিণ আফ্রিকান-আমেরিকান তারকা শার্লিজ থেরন এই চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

‘ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড’-এর প্রিক্যুয়েল হিসেবে ১৫-২০ বছর আগের গল্প থাকছে নতুন পর্বে, যখন পৃথিবীতে পরিবেশ বিপর্যয়ের পর অল্প বয়সী মেয়ে ফিউরিওসাকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় লুটেরা বাহিনী। কিন্তু সে হাল ছাড়ে না। অসংখ্য বিপজ্জনক শত্রুকে মোকাবিলা করে বর্জ্যভূমির মধ্য দিয়েই ঘরে ফেরার রুদ্ধশ্বাস সংগ্রামে নামে মেয়েটি। তরুণী ফিউরিওসা চরিত্রে আছেন আমেরিকান তারকা আনিয়া টেলর-জয়।

কান উৎসবের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে জর্জ মিলার জানিয়েছেন, প্রিক্যুয়েলটির ভাবনা একদশকেরও বেশি সময় ধরে তার মাঝে ছিল। ৭৯ বছর বয়সী এই নির্মাতা বলেন, “আনিয়া, ক্রিস ও টমের সঙ্গে মিলে ‘ফিউরিওসা: অ্যা ম্যাড ম্যাক্স সাগা’ ভাগাভাগির জন্য কান উৎসবে ফেরার চেয়ে রোমাঞ্চকর আর কিছু হতে পারে না। বৈশ্বিক মঞ্চে দর্শকদের সঙ্গে ছবিটি উপভোগের জন্য চাকচিক্যময় কানের চেয়ে ভালো জায়গা আর নেই।”

ফিউরিওসা: অ্যা ম্যাড ম্যাক্স সাগা কানে প্রদর্শনীর পর আগামী ২২ মে ওয়ার্নার ব্রাদার্স ডিসকভারির পরিবেশনায় ফ্রান্সে এবং আগামী ২৪ মে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে ‘ফিউরিওসা: অ্যা ম্যাড ম্যাক্স সাগা’। প্রযোজনায় ডগ মিচেল ও জর্জ মিলার। চিত্রনাট্য লিখেছেন জর্জ মিলার ও নিকো লাথাউরিস।

ওটিটির রমরমা সত্ত্বেও বিশ্বব্যাপী বড় পর্দায় ‘ফিউরিওসা: অ্যা ম্যাড ম্যাক্স সাগা’ মুক্তির সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ওয়ার্নার ব্রাদার্স পিকচার্সকে ধন্যবাদ দিয়েছে কান উৎসব আয়োজকরা।

কান উৎসবের সঙ্গে জর্জ মিলারের সম্পর্কটা নিবিড়। ১৯৯৯ সালে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে বিচারকদের মধ্যে ছিল তার নাম। ‘ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড’ ২০১৫ সালে প্রতিযোগিতার বাইরে স্থান পায়। ২০১৬ সালে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারকদের প্রধান হন তিনি। সর্বশেষ ২০২২ সালে তার পরিচালিত ‘থ্রি থাউজেন্ড ইয়ারস অব লংগিং’ ছিলো প্রতিযোগিতার বাইরে।

ভূমধ্যসাগরের তীরে দক্ষিণ ফ্রান্সের কান শহরের পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে উৎসবটির পর্দা উঠবে আগামী ১৪ মে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ক্যামিল কোতাঁন একে একে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারকদের স্বাগত জানাবেন। এবারের জুরি প্রেসিডেন্ট থাকছেন ‘বার্বি’র পরিচালক গ্রেটা গারউইগ। ৭৭তম কান উৎসব চলবে ২৫ মে পর্যন্ত।



Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles