Tuesday, July 23, 2024

সঞ্চয় করলে কি জীবনকে উপভোগ করা যায় না?


আমি সবসময় সবাইকে সঞ্চয় করতে উদ্বুদ্ধ করতে থাকি। আমার একটা স্বভাব হয়ে গেছে মানুষকে বলা যে, ‘সঞ্চয় করুন’। কিভাবে সঞ্চয় করবেন? আপনার যে আয় সেই আয়ের একটা নির্দিষ্ট অংশ সেটা ১০ কিংবা ৫০ শতাংশ, যা হোক না কেন, আগে সঞ্চয় করবেন। সঞ্চয় করার পর যা থাকবে সেখান থেকে আপনি খরচ করবেন। যেহেতু আমি বারবার সঞ্চয় করতে বলছি তাই অধিকাংশ মানুষ ভাবছেন ‘আরে বাবা শুধু কি সঞ্চয় করবো নাকি, জীবনকে উপভোগ করবো না?

আমিও ঠিক একই কথা বলি, ‘শুধুই সঞ্চয় করবেন নাকি, জীবনকে উপভোগ করবেন না?’ বিষয়টা একটু বুঝিয়ে বলার দরকার আছে।

প্রথম প্রশ্ন হচ্ছে– আয় কেন করছেন? উত্তর হচ্ছে– একটা সুন্দর জীবন যাপন করার জন্য, আপনার পরিবারকে সুরক্ষিত রাখার জন্য, সামনে একটা সুন্দর জীবন পাওয়ার জন্য এবং মোট কথা আর্থিক স্বাধীনতার জন্য। বাস্তব সত্য হচ্ছে– আপনি সারা জীবন ধরে আয় করবেন না। আপনি ৫০/৬০ বছর বয়স পর্যন্ত আয় করবেন। তারপর অবসর জীবনের শুরু।

এই যে সারাজীবন কষ্ট করে খেয়ে না খেয়ে টাকা আয় করলেন, ভালো একটা জীবন পার করলেন কিন্তু অবসরে গিয়ে যদি টাকা না থাকে তাহলে চলবেন কিভাবে? অবসরে গিয়ে ভালোভাবে জীবন-যাপন করার জন্য, অন্যের মুখাপেক্ষী না হওয়ার জন্য আপনাকে এখন তৈরি হতে হবে। আপনার জীবনের একটা সময়ের আয় সারাজীবন ছড়িয়ে দিতে হবে যাকে আমি ভোগের আজীবন ব্যক্তিকরণ বলি। আর এই আয় সারা জীবন ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য আপনার জন্য সঞ্চয় বাধ্যতামূলক। তারপর বিনিয়োগ করা শুরু করা অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু আবার প্রশ্ন আপনি কি শুধুই সঞ্চয় ও বিনিয়োগ করবেন, জীবনকে উপভোগ করবেন না?

উত্তর হচ্ছে– সঞ্চয় করবেন, বিনিয়োগ করবেন এবং পাশাপাশি জীবনকে উপভোগও  করবেন। আমরা অনেকেই জীবনকে উপভোগ করার মানে বুঝি নেশা করতে হবে, মদ্যপান করতে হবে, ডিজে পার্টিতে যোগ দিতে হবে অর্থাৎ অসুন্দর ও অনৈতিক আনন্দে নিজেকে নিমজ্জিত করতে হবে। আমাদের আসলে বুঝতে হবে, হৃদয়ঙ্গম করতে হবে জীবনকে উপভোগ করা মানে কি। যদি ক্লাবে রাতের পর রাত কাটানো, মদ্যপান করা, অনৈতিক আনন্দে নিজেকে সম্পৃক্ত করাকে জীবন উপভোগ করা বুঝায় তাহলে বিপদ দরজায় উপস্থিত।

জীবনকে উপভোগ করার অর্থ নিজেকে অহেতুক আনন্দে সম্পৃক্ত করা নয়। কফি শপে কফি খাওয়া, পরিবারের সাথে সময় কাটানো, দেশে বিদেশে পরিবারসহ ঘুরতে যাওয়া, পরিবারের জন্য ভালো জিনিস কিনতে চাওয়া, ভালো একটা বাসায় থাকতে চাওয়া, জ্ঞান বৃদ্ধির জন্য ভালো কোর্স করতে চাওয়া, ভালো বই পড়তে চাওয়া, বই কিনতে চাওয়া, কাউকে বিপদে দান করা, গরিবদের পাশে থাকা– এই কাজগুলো আপনার জীবন উপভোগ করার অংশ।

আমার কথা হচ্ছে জীবনকে উপভোগ করবেন অবশ্যই কিন্তু সঞ্চয়কে বাদ দিয়ে নয়। মাসে যে টাকাটা আয় করলেন, সঞ্চয় না করে যদি জীবন উপভোগে সবটা ব্যয় করে ফেলেন তাহলে ঠিক হলো না। যদি কোন বিপদও আসে আর কাছে টাকা পয়সা না থাকে তাহলে আপনি সে বিপদটা মোকাবিলা করবেন কিভাবে? রিটায়ারমেন্টের পরে আপনি চলবেন কিভাবে? আপনার যা করা দরকার আপনি জীবনকে উপভোগ করবেন, সঞ্চয় করবেন, বিনিয়োগ করবেন, সবকিছু করবেন কিন্তু এর মধ্যে আপনার একটা ডিসিপ্লিন বজায় রাখতে হবে।

সেই ডিসিপ্লিনটা কি আসলে? আপনার ইনকাম যদি হয় ১ লাখ টাকা হয়, তার মধ্যে সঞ্চয় করুন  ১০ হাজার কিংবা ১৫ হাজার টাকা বা তার বেশি। বাদ বাকি টাকার কিছু অংশ জীবনকে উপভোগ করার জন্য রাখা যায়। বছরে এক বা দুইবার ঘুরতে যান। সঞ্চয়টাকে বজায় রেখে অন্যান্য খরচ কমিয়ে জীবনকে উপভোগ করুন। মনোযোগ দিন, চিন্তা করুন, পারবেন।

আপনি এক মাসে যদি বাইরে খান পরের মাসে আর বাইরে খাবার দরকার নেই। সতর্কভাবে মুভ করতে হবে এই বিষয়ে। বারো মাসে আপনি অল্প অল্প টাকা সঞ্চয় করে ঘোরার ব্যবস্থা করুন, পরিবারের জন্য জিনিস কেনার ব্যবস্থা করুন। সবকিছুই করুন অল্প করে কিন্তু সঞ্চয়কে বাদ দিয়ে নয়। কারণ মনে রাখতে হবে, আয় না থাকলে সঞ্চয় দিয়ে চলবেন, রিটায়ারমেন্টে যখন যাবেন তখন সঞ্চয় থেকে আপনার প্যাসিভ ইনকাম আসবে, আপনি তখন সেটা দিয়েই চলবেন, কারণ মূল সঞ্চয় শেষ করে ফেললে দেখবেন হাতে আর টাকা নেই।

তখন আপনি হাত পাতবেন, ধার করবেন বা অ্যাসেট বিক্রি করবেন। জীবনে সুন্দর একটা শৃঙ্খলা বজায় রাখবেন। এটা খুব দরকার সবার জন্য।

আমি অনেক হাইপেইড চাকরিজীবীদের চিনি যারা এক সময় অনেক টাকা আয় করেছেন কিন্তু আর্থিক শৃঙ্খলা না থাকার কারণে তারা এখন দারুন বিপদ্গ্রস্থ। তারা চাকরি হারিয়েছেন, এবার হাতে টাকাও নেই। এখন লোকের কাছে হাত পাতছেন। তাই যদি নিজের ভালো চান তাহলে আয়ের একটা অংশ আপনি সরিয়ে রাখবেন ভবিষ্যতের জন্য, সুন্দর জীবন কাটানোর জন্য এবং আর্থিক দুরাবস্থা যেন মোকাবিলা করতে না হয়, সেজন্য। এজন্য আপনার জীবনের প্রতিক্ষেত্রে শৃঙ্খলা ও আর্থিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত জ্ঞান অত্যন্ত জরুরি।

লেখক: কলামিস্ট; ফাইন্যান্স ও বিজনেস স্ট্রাটেজিস্ট

 



Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles